সে কি আপনাকে সত্যিই ভালোবাসে? ৬ উপায়ে বুঝে নিন

প্রাথমিকভাবে সম্পর্কের নানা লক্ষণ দেখেই যে কেউ বুঝতে পারবে আপনার সঙ্গীর সঙ্গে যথেষ্ট ভাব হয়েছে। কিন্তু তা কি সত্যিই ভালোবাসার পর্যায়ে পৌঁছেছে? আপনার সঙ্গী কি সত্যিই আপনাকে ভালোবাসে? এ বিষয়টি বোঝার জন্য সাতটি বিষয় জেনে নিন। এক প্রতিবেদনে বিষয়টি জানিয়েছে টাইমস অব ইন্ডিয়া। আপনার প্রতি তার ভালোবাসা আছে, এ বিষয়টি বোঝার অন্যতম উপায় হলো সে আপনার সঙ্গে তার পরিবারের পরিচয় করিয়ে দেবে। এ সময় আপনার যে কোনো প্রয়োজনে তাকে ডাকলে যেমন কাছে পাবেন তেমন সে আপনার দুঃসময়েও সঙ্গে থাকবে। আপনার পরিবার আপনার জন্য গুরুত্বপূর্ণ। আর আপনাকে যে ভালোবাসে সে আপনার পরিবারকেও সম্মান করবে। আপনার বাবা-মা কিংবা ভাই-বোনকে সে সম্মান করবে। তাদের সঙ্গে যদি কথা বলতে হয় তাহলে সে অতি সম্মানের সঙ্গে তা করবে। আপনার সঙ্গে জড়িয়ে ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা করতে কেউ কি এগিয়ে এসেছে? যদি এগিয়ে আসে তাহলে বুঝে নিন, সে আপনার প্রতি দুর্বল, আপনাকে ভালোবাসে এবং আপনার সঙ্গে জীবন অতিবাহিত করতে চায়।

প্রত্যেক মানুষের দেহের ভাষাতেই বহু বিষয় প্রকাশিত হয়। আপনার সঙ্গী যদি সত্যিই আপনাকে ভালোবাসে তাহলে তা তার দেহের ভাষায় প্রকাশিত হবে। মানুষ যখন মিথ্যা কথা বলে তখন তা তার দেহের ভাষায় বোঝা যায়। একইভাবে ভালোবাসার বিষয়টিও দেহের ভাষায় বোঝা সম্ভব। সে যদি আপনার কথা না শোনে তাহলে বুঝতে হবে বিষয়টি সত্যিই চিন্তার। কারণ আপনার কথা শোনা খুবই গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। তাই লক্ষ্য করুন যে, তিনি শুধুই কথা বলছেন নাকি আপনার কথাও মনোযোগ দিয়ে শুনছেন। যে আপনাকে ভালোবাসে সে আপনাকে সামান্য হাসানোর জন্য হলেও নানাভাবে প্রচেষ্টা চালাবে। আপনার জন্মদিনসহ নানা তারিখের কথা খেয়াল রাখবে। এ ছাড়া অন্য নানা উপলক্ষেও সে আপনাকে অভিনন্দন জানাতে ভুলবে না। এছাড়া যে আপনাকে ভালোবাসে সে সব সময় আপনাকে নানা প্রতিকূল পরিস্থিতি থেকে রক্ষা করবে।

আপনাকে নিয়ে কেউ হাসাহাসি করলে সে তাতে অংশ নেবে না, বরং তাদের বিরুদ্ধেই থাকবে। এমনকি আপনি তার কাছ থেকে সাহায্য না চাইলেও সে আপনার সাহায্যে এগিয়ে আসবে। আপনাকে যে ভালোবাসে সে আপনার নানা স্বপ্ন সফল হতে সহায়তা করবে। আপনার অর্জন দেখে খুশি হবে এবং আরও অর্জনে আপনাকে উৎসাহিত করবে। আপনি তাকে পেছনে ফেলে এগিয়ে যাচ্ছেন, এ জন্য সে মোটেও দুঃখ পাবে না। তার বদলে সে আপনার অর্জনে সহায়তা দিতে এগিয়ে আসবে এবং সে জন্য গর্ববোধ করবে। যে আপনাকে ভালোবাসে সে আপনার মতামতেরও মূল্য দেয়। আপনার কথা সে সময় নিয়ে শুনবে এবং সিদ্ধান্ত নিতে সহায়তা করবে। যদি কেউ আপনার মতামতকে মূল্য না দেয় তাহলে এর বিপরীত অবস্থা হবে। কিন্তু আপনাকে যদি ভালোবাসে তাহলে সে আপনাকে একজন বুদ্ধিমান বলেই মনে করবে।

About admin

Check Also

কতটুকু ঘুম দরকার শিশুদের?

বড়দের কতটুকু ঘুম দরকার তা নিয়ে বহু গবেষণা হয়েছে। তারই ফলাফলে প্রতিরাতে ৮ ঘণ্টা ঘুমকে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *