শিশুর লালন-পালনে অন্তরায় হয়ে উঠছে ব্যস্ত নাগরিক জীবন

শিশুকে কিভাবে বড় করে তুলতে হবে এসব বিষয় নিয়ে বহু বাবা-মায়েরই বিভ্রান্তি রয়েছে। সম্প্রতি শিশু, কিশোর কিংবা তরুণ-তরুণীদের মাঝে মানসিক বিভিন্ন সমস্যা দেখা যাচ্ছে। এসব সমস্যার কারণে তাদের মাঝে বিষণ্ণতা ও আত্মহত্যার প্রবণতা দেখা যাচ্ছে। এ ধরনের প্রবণতা থেকে তাদের রক্ষা করার জন্য বাবা-মায়ের নিবিঢ় পরিচর্যা প্রয়োজন। এক প্রতিবেদনে বিষয়টি জানিয়েছে টাইমস অব ইন্ডিয়া। বর্তমান ব্যস্ত নাগরিক জীবনে বাবা-মায়ের পক্ষে সন্তানের সব সুযোগ সুবিধা দেখা সম্ভব হয় না। এ কারণে বর্তমানে সন্তান লালন-পালন করা আগের তুলনায় অনেক জটিল হয়ে পড়েছে।

অনেক বাবা-মাই তাদের নিজস্ব মানসিক চাপ ও অন্যান্য ঝামেলায় সন্তানকে সঠিকভাবে সময় দিতে পারছেন না। এতে নানা সমস্যায় পড়ছে সন্তান।সম্প্রতি শিশু, কিশোর-কিশোরী কিংবা তরুণ-তরুণীদের মাঝে মানসিক সমস্যা অনেকাংশে বেড়ে গেছে। এতে তাদের মাঝে বিষণ্ণতা তৈরি হচ্ছে। অনেকের মাঝেই এ বিষণ্ণতা মারাত্মক বেড়ে যাচ্ছে। এতে অনেক শিশু-কিশোর আত্মঘাতি হয়ে উঠছে। বিশেষজ্ঞরা এর পেছনের কারণ হিসেবে বলছেন পিতা-মাতার নানা ধরনের ভুল সিদ্ধান্ত কিংবা সঠিকভাবে শিশুর পেছনে মনোযোগ না দেওয়া। কখনো কখনো শিশুকে পিতা-মাতা এমনভাবে লালন-পালন করেন যে, তারা অতিরিক্ত নির্ভরশীল হয়ে পড়ে।

এতে তাদের স্বাভাবিক বিকাশ বাধাগ্রস্ত হয়। পিতা-মাতা যদি তার সব সিদ্ধান্ত শিশুর ওপর চাপিয়ে দেয় তাহলে তা শিশুকে বিপথে পরিচালিত করতে পারে। এতে শিশু সঠিকভাবে সিদ্ধান্ত নেওয়ার সক্ষমতা অর্জন করে না। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, পিতা মাতাকে সন্তান লালন-পালন করার ক্ষেত্রে কখনোই বাড়তি চাপ দেওয়া যাবে না। তারা শিশুর সঙ্গে ভারসাম্যপূর্ণ আচরণ করবেন। আমাদের অনেকেই শিশুকে অতিরিক্ত নিয়ন্ত্রণের মানসিকতা রয়েছে, যা আদতে শিশুর ক্ষতি করে। এসব বিষয়ে সতর্কতার পরামর্শ দিচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা।

About admin

Check Also

মোহিত করবে টানা চোখ

জন্মগতভাবেই একেকজন মানুষের চোখ একেকরকম। কারও কারও চোখ বড় আবার কারও আকারে ছোটো। অনেকেই নিজের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *